Alqiblah Hajj Kafela Travles & Tours

আমাদের কিছু কথা

পবিত্র হজ্ব ও ওমরাহ সেবায় সর্বোত্তম সেবা প্রদানে অঙ্গীকারবদ্ধ

আল কিবলাহ্ হজ্ব কাফেলা ট্রাভেলস্ এন্ড ট্যুরস্

নিঃসন্দেহে সর্বপ্রথম ঘর যা মানুষের জন্য নির্ধারিত হয়েছে সেটাই হচ্ছে এই ঘর, যা মক্কায় অবস্থিত এবং সারা জাহানের মানুষের জন্য হেদায়াত ও বরকতময়।     ( সুরা আল ইমরান-৯৬। )

কাবা মুসলিমদের কিবলা। ভৌগলিক সীমারেখা নির্বিশেষে দুনিয়ার প্রতিটি মুসলমান দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করে কাবার দিকে মুখ করে। কাবা পৃথিবীর নিয়ামক শক্তি। তাবৎ মানবজাতির অস্তিত্ব রক্ষাকারী মহাশক্তি। মাত্র একটি বছর হজ্বব্রত পালনে বিশ্ববাসী বিরত থাকলে পৃথিবী ধ্বংস অনিবার্য। কাবার দিকে মুসলমানের আকর্ষণ সহজাত। কাবা মুসলমানদের কলিজার টুকরা। তাইতো প্রতি বছর লাখ লাখ মুসলমান মনের টানে পাগলের বেশে পঙ্গপালের মতো ছুটে যায় কাবার দিকে। কাবার দিকে আল্লাহ প্রেমিকদের এই স্রোত আধুনিক যুগে যেমন দৃশ্যমান, দৃশ্যমান প্রাচীন সেই যুগেও যখন হজ্ব করা ছিল যার পরনাই কষ্টসাধ্য, ছিল মৃত্যুপথে যাত্রার নামান্তর। কল্পনা করা যায় কী কষ্ট! পদব্রজে হাজার হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে কাবা পৌঁছা। তবু থেমে থাকেনি কাবার দিকে আল্লাহ প্রেমিদের যাত্রা। কী সুস্থ, কী অসুস্থ ঈমানদার মাত্রই আল্লাহর ঘর কাবা জিয়ারাতের জন্য ব্যাকুল, বেকারার। সুস্থ সবল মানুষ তো বটেই অসুস্থ, বিকলাঙ্গ, পঙ্গু মানুষেরা পর্যন্ত সুদূর বোখারা থেকে হামাগুড়ি দিয়ে দীর্ঘ ১০ বছরে কাবা পৌঁছার বিষ্ময়কর কাহিনী ইতিহাসে বিধৃত আছে। ধন্য হাজী সাহেবান ধন্য তাদের জীবন। আল্লাহর ঘরের চতুর্পাশ্বে প্রদক্ষিণ, বেহেশত থেকে স্থানান্তরিত হাজরে আসওয়াদে চুমু খাওয়া মানে সে স্থানে ঠোঁট লাগানো। যেখানে ঠোঁট লেগেছে প্রিয় নবী মুহাম্মদ (স.) এবং এটি জাতির পিতা ইব্রাহিম (আ.) এর স্মৃতি, আল্লাহর কুদরতের নিদর্শন মাকামে ইব্রাহিমের পেছনে নামায পড়া, মদিনার শীতল মাটির নীচে শায়িত মুহাম্মদ (স.) এর কবরের সামনে সবুজ গম্বুজের নিচে দাড়িঁয়ে সরাসরি সালাত ও সালাম পেশ করা, মিনা, মুজদালিফা রাত্রিযাপন, আরাফায় অবস্থান, দোয়া, মোনাজাত ইত্যাদি স্থানে কান্নাকাটির সৌভাগ্য তাদের নছিব হয়।
আল্লাহর মেহমান তথা অতি সৌভাগ্যবান মানুষগুলোর খেদমতের জন্য এদেশে অনেক কাফেলার ছড়াছড়ি। আর সেই কাফেলার ভিড়ে আল কিবলা হজ্ব কাফেলা আরেকটি অন্যতম নাম। এই কাফেলা অত্যন্ত অল্প সময়ে সম্মানিত হাজিদের সহীহ পদ্ধতিতে হজ্ব আদায়ে সার্বিক নির্দেশনা ও প্রতিশ্রুতি রক্ষার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সুনামের সাথে পরিচালনা হয়ে আসতেছে। আলহামদুলিল্লাহ আল কিবলা হজ্ব কাফেলার সত্ত্বাধিকারী সকলেই বিজ্ঞ ওলামায়ে কেরাম। সততা, আমানতদারী, কথা ও কাজের মিল এই কাফেলার অন্যতম বৈশিষ্ট্য। আল্লাহর নিকট জবাবদিহিতার চেতনা ও মহান রাব্বুল আল আমিনের সন্তুষ্টি অর্জন করার মানসিকতা এই কাফেলার ভিত্তি। অতীব অভিজ্ঞতার আলোকে ইখলাসপূর্ণ খেদমতের মাধ্যমে কাফেলাটি আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে কামেয়াব লাভ করুক এই আমাদের কামনা।